‘মোদি ক্ষমতায় থাকলে ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেটে উন্নয়ন হবে না ’

‘মোদি ক্ষমতায় থাকলে ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেটে উন্নয়ন হবে না ’
মোদি ক্ষমতায় থাকলে ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেটের উন্নয়ন হবে না। ছবি: সংগৃহীত

ভারত-পাকিস্তান ক্রিকেট নিয়ে সব সময় সরব পাকিস্তানের অলরাউন্ডার শহীদ আফ্রিদি। একাধিকবার বিভিন্ন জনসভায় প্রকাশ্যে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সমালোচনা করেছেন তিনি। আফ্রিদি আবারও দুষলেন সেই নরেন্দ্র মোদীকে। পাকিস্তানের গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘যতদিন মোদী ক্ষমতায় আছেন, ততদিন ভারত-পাকিস্তান সম্পর্কের কোনও উন্নতি সম্ভব হবে না।’

ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে কীভাবে বন্ধুত্ব হতে পারে! কয়েকদিন আগেই সে উপায় বলে দিয়েছেন প্রাক্তন পাক ক্রিকেটার শাহিদ আফ্রিদি। এক্সপো ২০২০ দুবাই ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনালে গিয়ে যুবরাজ সিং-কে সঙ্গে নিয়ে ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক ক্রিকেট সিরিজ নিয়ে জোরালো আলোচনা করেন। কিন্তু বাস্তবে চিত্রটা একই রয়ে গিয়েছে।

ভারত-পাকিস্তান কূটনৈতিক সম্পর্ক এমনিতেই তলানিতে ঠেকেছে। রাজনৈতিক অস্থিরতা থেকে শুরু করে মত পার্থক্য তো রয়েছেই। ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সিরিজ তো দুরের কথা আইসিসি ইভেন্ট ছাড়া বাইশ গজে দুই দেশের দ্বৈরথ দেখা যায় না। অথচ বিশ্বজুড়ে ইন্দো-পাক ক্রিকেট যুদ্ধের একটা বড়সড় চাহিদা রয়েছে। তবে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে সম্পর্ক যে আজ তলানিতে ঠেকেছে তা একটি মানুষের জন্যই বলে উল্লেখ করেন শাহিদ আফ্রিদি- আর তিনি হলেন নরেন্দ্র মোদী।

এক সাক্ষাৎকারে শাহিদ আফ্রিদি বলেন, ‘যতদিন মোদী ক্ষমতায় রয়েছেন, আমার মনে হয় ততদিন কোনও ইতিবাচক উত্তর পাওয়া যাবে না। আমরা সবাই (ভারতীয় এবং পাকিস্তানিরাও) মোদীর ভাবনা-চিন্তা জানি। ওনার ভাবনা চিন্তা সবসময়ই নেতিবাচক। ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে সম্পর্ক খারাপ হয়েছে শুধুমাত্র ওই একটা মানুষের জন্য।’ আফ্রিদি আরও বলেন ‘সীমান্তের দুই পাশের মানুষজনই একে অপরের দেশে বেড়াতে যেতে চান। কিন্তু মোদীর ভাবনা-চিন্তায় কী রয়েছে সে তিনিই জানেন।’

Source: ইত্তেফাক